একা এবং একসঙ্গে-নির্বাচিত আশি

আশি বছরে পদার্পণ করেও তাঁর গল্প লেখা অব্যাহত রয়েছে। এসব গল্পে রয়েছে নতুনত্ব এবং সমকালীনতার পরিচয়। ২০১৭ সালে আশি বছরের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে প্রকাশিত ‘একা এবং একসঙ্গে–নির্বাচিত আশি’ গল্পগ্রন্থে প্রথম পর্ব থেকে শুরু করে সাম্প্রতিক গল্পে পাওয়া যাবে লেখকের ছোটোগল্প লেখার সার্বিক পরিচয়।

৳ 1,295.00

Book Details

Language

Binding Type

ISBN

Publishers

Pages

Price

৳1295

Size

8.7" x 5.8"

About The Author

হাসনাত আবদুল হাই

জন্ম : ১৯ মে ১৯৩৭, কলকাতা। পৈত্রিক নিবাস : কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। উচ্চতর শিক্ষা : ঢাকা, ওয়াশিংটন, লন্ডন ও কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়। গবেষণা : ভিজিটিং ফেলো, কুইন এলিজাবেথ হাউস, অক্সফোর্ড (১৯৮৯)। ভিজিটিং স্কলার, কিয়োতো বিশ্ববিদ্যালয় (১৯৯৪-৯৫)। চাকুরি জীবন : সিনিয়র প্রভাষক, অর্থনীতি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (১৯৬৪-১৯৬৫)। সরকারি চাকুরিতে যোগদান (সেপ্টেম্বর, ১৯৬৫)। বাংলাদেশ সরকারের সচিব পদ থেকে অবসর গ্রহণ (২০০০)।

সাহিত্য পুরস্কার : শেরে বাংলা ফজলুল হক, মৌলানা আকরাম খাঁ, আচার্য্য জগদীশ চন্দ্র বসু, অলক্ত সাহিত্য পুরস্কার, শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন পুরস্কার, ক্রান্তি সম্মাননা, এসএম সুলতান সম্মাননা। ছোটোগল্পের জন্য বাংলা একাডেমি পুরস্কার (১৯৭৮)। সাহিত্যে অবদানের জন্য একুশে পদক লাভ (১৯৯৫)।

ছোটোগল্পের সঙ্গে হাসনাত আবদুল হাই-এর আকর্ষণ ও আগ্রহের সম্পর্ক দীর্ঘকালের। তাঁর সাহিত্যচর্চার সূচনাই হয়েছিল এর মাধ্যমে। ১৯৫৮ সালে এক দৈনিক পত্রিকার সাহিত্য সাময়িকীতে প্রকাশিত হয় তাঁর প্রথম গল্প। প্রথম বয়সের লেখা সাধারণত অধিকাংশ লেখকের ক্ষেত্রে যা হয়ে থাকে, সেই লেখাটি ছিল রোমান্টিক মেজাজের। ১৯৫৮ থেকে ১৯৬০ সাল পর্যন্ত নিয়মিত লিখে গিয়েছেন ছোটোগল্প, ধীরে ধীরে বিষয় ও বর্ণনাভঙ্গিতে এসেছে পরিবর্তন। দীর্ঘ এক দশকের প্রবাসকালে সাহিত্যের গঠনে ছেদ না পড়লেও লেখনে পড়েছে বিরতি। একাত্তরের পর তিনি আবার পূর্ণোদ্যমে শুরু করেছেন ছোটোগল্প লেখা। রোমান্টিক ধারার পাশাপাশি গুরুত্ব পেয়েছে সমাজ-বাস্তবতার প্রভাব। আঙ্গিকেও এসেছে পরিবর্তন। বিষয়বস্তুতে, ভাষা ব্যবহারে এবং পরীক্ষানিরীক্ষায় বিশিষ্ট গল্পের পাশাপাশি গ্রথিত হয়েছে প্রচলিত ধারার গল্প। গ্রাম ও নগর, দুইই তাঁর গল্পের পটভ‚মি।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “একা এবং একসঙ্গে-নির্বাচিত আশি”

Your email address will not be published. Required fields are marked *